Tips

আপনার সিম কার নামে রেজিষ্ট্রেশন করা তা জেনে নিন ২০২১

sim registration check online bangladesh: robi,gp,banglalink,teletalk,airtelআমরা সবাই সিম ব্যবহার করে থাকি  বিশেষ কোন কারনে হয়তো আমরা অনেকের  দরকার আমার সিমটি কার নামে নিবন্ধন করা আছে যেমনঃ আপনি আপনার বন্ধুর এনআইডি ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে আপনার সিমটি রেজিষ্ট্রেশন করেছেন । ওই সিমে আপনি আপনার পারসোনাল ব্যাংক করেন তাহলে আপনার বলা যায় আপনার একাউন্ট পুরোপুরি নিরাপওা নেই । তাই সবার নিরাপওার জন্য তার জানা দরকার আপনার ব্যবহৃত সিমটি কার নামে নিবন্ধন/ রেজিষ্ট্রেশন করা আছে  ।

আমার সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা আছে

Nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছেঃ আপনার এনআডি দিয়ে কয়টি সিম নিবন্ধন করা এছ তা জানতে আপনাকে কয়েক টি পদ্ধতি অবলম্বন করা লাগতে পারে । ২০১৯  সালের আগে আপনি অনেক সিম রেজিষ্ট্রেশেন  করতে পারতেন আপনার এনআইডি দিয়ে এবং রেজিষ্ট্রেশন করার লিমিট ছিল না । তবে এনটিআরসি (বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রন কমিশন ) এর একটি নোটিশে দেখা যায় ২৬ এপ্রিল ২০১৯  মধ্যে যাদের একই ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে ১৫ টির উপের সিম নিবন্ধন করা আছে, সেই সকল  সিম বন্ধ করে দেওয়া হবে । তবে আপনার কার নামে রেজিষ্ট্রেশন তা ২ ভাবে বের করা যায়  প্রথম পদ্ধতি ইউএসএসডি কোডের মাধ্যমে অথবা কোন সিম রেটেইলার , কাস্টমার কেয়ার সেবা সেন্টারে গিয়ে ।

সিম নাম্বার দিয়ে আইডি কার্ড বের করা

আপনার সবর্দা খুঁজে থাকেন কিভাবে অপরিচিত লোকের  মোবাইল নম্বর দিয়ে পরিচয়  তার ভোটার আইডির তথ্য কিভাবে বের করা যায় । আসলে কি ফোন নম্বর দিয়ে কি কারও ভোটার আইডি কার্ডের নাম ও আইডি নং ও ঠিকানা বের যায় ? না। বের করা যায় না কারন একমাত্র আইনশৃংখলা গোয়েন্দা বাহিনী মোবাইল নম্বর দিয়ে ভোটার তথ্য বের করতে পারবে । যদি কেউ বলে আপনাকে মোবাইল নম্বরদিয়ে ভোটার তথ্য বের করে দিবে মনে করবেন কথাটি সত্য নয় ।

Nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিস্ট্রেশন হয়েছে

nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিষ্ট্রেশন হয়েছে তা খুব সহজে বের করতে পারবেন তার জন্য আপনাকে কয়েকটি পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে যা নিম্নে আলোচনা করা হয়েছে চাইলে nid দিয়ে কয়টি সিম রেজিষ্ট্রেশন হয়েছে নিম্নে দেখে নিতে পারেন ।

আরো পড়ুন:  ঈদের শুভেচ্ছা, এসএমএস & পিকচার ২০২১

সিম রেজিস্ট্রেশন পরিবর্তন

যদি আপনার নামে কোন সিম  রেজিষ্ট্রেশন করা থাকে চাইলে আপনার নামে রেজিষ্ট্রেশন করা সিম যেকোনো সিম রিটেইলারের কাছে/ কাষ্টমার কেয়ারে গিয়ে সিম রেজিষ্ট্রেশন পরিবর্তন করে অন্য কারো নামে মালিকানা ট্রান্সফার করতে পারেন ।
বি: দ্র: সিম মালিকানা পরিবর্তন করতে যার নামে পরিবর্তন করবেন তাকে অবশ্যই সংঙ্গে ভোটার আইডি কার্ড সাথে নিয়ে যেতে হবে ।

 সিম নিবন্ধন যাচাই

আপনার সিম সঠিক ভাবে আপনার নামে রেজিষ্ট্রেশন হয়েছে কিনা তা সঠিক ভাবে যাচাই করতে নিম্নের মেথড গুলো অনুসরন করতে পারেন ।

সিম নিবন্ধন বাতিল করার নিয়ম

আপনার এনআইডি দিয়ে কয়টি সিম করা আছে সেই সকল সিম আপনি চাইলে পার্মানেন্ট  বন্ধ করে দিতে পারবেন । যেমনঃ রবি, গ্রামীন,বাংলালিংক,এয়ারটেল এবং টেলিটক সিম এসব সিম যদি আপনার থাকে এবং আপনি যেকোন অপারেটরের সিম  বন্ধ করতে চাইলে বন্ধ করতে পারবেন । শুধু যে অপারেটরের সিম বন্ধ করবেন কেবল সেই অপারেটরের আপনার নিকটস্থ কাষ্টমার কেয়ারে গিয়ে সিমটি বন্ধ করতে পারবেন ।

সিম রেজিস্ট্রেশন app

সিম রেজিষ্ট্রেশন অ্যাপ শুধু সিম রিটেইলারে জন্য ব্যবহার যোগ্য, সবার জন্য নহে। তবে আপনার রেজিষ্ট্রেশন করতে চান?  আপনাকে অব্যশই সিম বিক্রির কোড নিতে হবে আপনার দোকানের জন্য তাহলে, আপনিও সিম রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন।

ইউএসএসডি কোডের মাধ্যমে সিম রেজিষ্ট্রেশন চেকঃ আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে মোবাইলে ডায়াল করুন *16001# তার পর কল বাটনে প্রেস করুন তারপর আপনার ভোটার আইডি কার্ডের লাষ্টের চার সংখ্যা দিন এবং ফিরতি এসএমএস এ দেখতে পাবেন আপনার নামে কয়টি সিম নিবন্ধন করা আছে । তবে সেক্ষেত্রে, যার নামে সিম রেজিষ্ট্রেশন  তা চেক করতে হলে ওই ব্যক্তির নামে নিবন্ধন করা যেকোন সিম দিয়ে *16001#  ডায়াল করুন এবং পরবর্তীতে তার NID কার্ডের লাষ্টের চার সংখ্যা দিতে হবে। তাহলে, ফিরতি এসএমএস  ওই ব্যক্তির  নামে যে কয়টি কোম্পানির সিম রেজিষ্ট্রেশন তার লিষ্ট দেখতে পাবেন।
বিঃ দ্রঃ সিমটি যার নামে রেজিষ্ট্রেশন করা, কেবল নামে রেজিস্টকৃত যেকোন সিম থেকে কোড ডায়াল করতে হবে।

সিম হারিয়ে গেছে মালিক কে তা জানেন নাঃ  আমরা অনেক সময় বন্ধু বান্ধব, পিতা/মাতা ও আত্বীয় স্বজনের নামে সিম নিবন্ধন করে থাকি, কেননা তখন হয়তো আপনার NID কার্ড হয় নি, তাই কোন রিলেটিভের নামে আপনার সিম  নিবন্ধন করেছেন। কিন্তু সিমটি ২ বছর ব্যবহার করার পর সিমটি হারিয়ে ফেলেছেন এবং ভুলে গেছেন সিমটি কার নামে রেজিষ্ট্রেশন করেছেন। এখন করনীয় কি? হ্যাঁ! আপনি আমাদের দেওয়া পদ্ধতি অনুসরন করলে হারিয়ে যাওয়া সিম পূনঃউদ্ধার করতে পারবেন। সিম হারিয়ে যাওয়ার পর যদি সিম কার নামে নিবন্ধন করা তা না জানেন। তাহলে এমন কিছু ব্যক্তিকে চিহ্নিত করতে হবে, যাদের নামে আপনার সিমটি রেজিষ্ট্রেশন করা। কারন আমাদের ভোটার আইডি কার্ড না থাকলে, আমরা কোন রিলেটিভের ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে সিম কিনে থাকি। সেহেতু, আপনার চিহ্নিত করা ব্যক্তিকে নিয়ে কোন সিম বিক্রেতার কাছে গিয়ে সিম নম্বর দিন এবং সিমটি রিপ্লেস করতে বলুন “দোকানদারকে” এবং আপনার চিহ্নিত ব্যক্তির ফিংগার প্রিন্ট দিন, যদি আপনার চিহ্নিত ব্যক্তির নামে সিমটি নিবন্ধন হয়ে থাকে তাহলে রিপ্লেসমেন্ট সফল হবে ও হারানো সিম কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তা জানতে পারবেন।

বিঃ দ্রঃ সিম হারিয়ে যাওয়ার পর  যদি না জানেন সিমটি কার নামে, তাহলে অনুমান করা কয়েকজন ব্যক্তির ফিংগার প্রিন্ট ব্যবহার করে সিম রিপ্লেস করুন,কোন দোকানে গিয়ে, এক্ষেত্রে  কোন ভোটার আইডি কার্ড না আইডি নম্বর প্রয়োজন নেই, কেবল ফিংগার প্রিন্ট দিয়েই সিম রিপ্লেস করা যাবে।

বায়োম্রেট্রিক রেজিষ্ট্রেশন চেক অনলাইনঃ যে কোনো সিম বিক্রেতার কাছে গিয়ে উপরের দেওয়া মেথড অনুসরন করে সিম বায়োম্রেট্রিক রেজিষ্ট্রেশন চেক করে মালিকানা পরিবর্তন বা আপনার  সিমটি কার নামে নিবন্ধন করা আছে তা যাচাই করে নিতে পারেনে এছারা কাষ্টমার কেয়ারে গিয়ে আপনার ফিংগারপ্রিন্ট দিয়ে আপনার নামে কয়টি সিম আছে তার পুরো লিস্ট দেখতে পাবেন ।

মৃত ব্যক্তির সিমের মালিকানা পরিবর্তন

মৃত ব্যক্তির নামে সিম আপনার নামে রিপ্লেস করতে চান? তাহলে আমাদের পোষ্ট সম্পূর্ন পড়ুন। কোন ব্যক্তি মারা গেলে কেবল মাত্র মৃত ব্যক্তির ওয়ারিশ, মৃত ব্যক্তির নামে যে সিম রেজিষ্ট্রেশ করা আছে  তা চাইলে কেবল ওয়ারিশ -রা  সিমটি নিতে পারবেন/ রিপ্লেস করতে পারবেন।আপনার ফ্যামিলির কারও নামে আপনার রেজিস্ট্রেশন করা কিন্তু যার নামে আপনার সিমটি রেজিষ্ট্রেশন করা, সে মারা গেলো ও আপনার সিমটি হারিয়ে গেল এবং হারিয়ে যাওয়া সিমটি আপনার খুব প্রয়োজন তাহলে আপনার সিমটি কিভাবে উঠাবেন?হ্যাঁ সমাধান আছে, তবে আপনার হারিয়ে যাওয়া সিম পূনঃউদ্ধার করতে ৫ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র লাগবে যা নিম্নে দেওয়া হলঃ

  • যার নামে সিম রেজিষ্ট্রেশন করা, অথাৎ মৃত ব্যক্তির এনআইডি কার্ড
  • মৃত ব্যক্তির মৃত্যু সনদ লাগবে, তবে চেয়ারম্যানের লেখা কোন প্রত্যয়ন পত্র পত্র গ্রহন যোগ্য নহে।
  • আপনি পরিবারের সদস্য হবার পরও no objection certificate এবং সাথে ওয়ারিশ নামা লাগবে।
  • যার নামে সিম রেজিষ্ট্রেশন করবেন তার এনআইডি কার্ড
  • আপনি যেই এলাকায় বসবাস করেন, সেই এলাকার কমিশনারের কাছ থেকে প্রত্যয়ন পত্র।

উপরোল্লিখিত সকল প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র সংগ্রহ করে, আপনি যেই কোম্পানির সিম উঠাবেন, আপনি সেই কোম্পানির নিকটস্থ কাষ্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করুন। তাহলে আপনি মৃত ব্যক্তির নামে সিমের মালিকানা পরিবর্তন করে আপনার নামে করতে পারবেন।

আমাদের লেখা আপনাদের বুঝতে সমস্যা হলে আমাদের কমেন্ট করতে পারেন আমাদের । অবশ্যই আপনার কমেন্টের রিপ্লাই দিব। আপনি কি সরকারি ও বেসরকারি চাকরির খবর খুঁজতেছেন তাহলে চাকরির খবর পেজ ভিজিট করুন।

Related Articles

11 Comments

  1. আমার খালাতো ভাইয়ের নামে সিম রেজিঃ বাতিল হয়েছে। সিমটি রিপ্লেস করতে গেলে দেখায় সিমটি এই আইডি দিয়ে নিবন্ধিত নয়। এখন উপায় কি?

    1. সিম দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকলে কোম্পানি আপনা্র সিম বন্ধ করে দিবে এবং সিম পুনরায় মার্কেটে ছেড়ে দেয় ।
      আপনার সমস্যাটির জন্য কাষ্টমার কেয়ারে যোগাযোগ করুন ।

      1. ভাই আমার এই নাম্বার 01323-186617 বন্ধো করে দেন

  2. ভাই আমার সিম হাড়িয়ে গেছে আমি জানি না সিমটি কার নামে নিবন্ধন করানো এখন উপায় কি

    1. সিম হাড়িয়ে গেলে কার নামে রেজিশ্ট্রেশন করা যদি না জানা থাকে তাহলে আপনাকে অনুমান করে নিতে হবে কার নামে হতে পারে। সবাই ভাই বোন পিতা/মাতা এবং কোন রিলেটিভের নামে রেজিষ্ট্রেশন করে যদি নিজের ভোটার আইডি কার্ড না থাকে ।মোট কথা আপনি অনুমান করে নিবেন সিম কার নামে রেজিশ্ট্রশন করা তাদের ভোটার আইডি নম্বর নিয়ে যে কোন ফোন থেকে *16001# ডায়াল করুন এরপর দেখতে পাবেন ভোটার আইডি এর লাষ্ট ৪ সংখ্যা চাইবে । আপনার সংরক্ষিত একটি একটি ভোটার নম্বর দিয়ে চেষ্টা করুন ফিরতি এসএমএস এ দেখুন আপনার ভোটার আইডি দিয়ে যে কয়টি নম্বর রেজিষ্ট্রেশন করা তার লিষ্ট পাবেন এবং নম্বরের লাস্টের চার সংখ্যা দেখতে পাবেন ।

      1. ভাই আমার একটা সমস্যা আমারে একটা নাম্বারে জালাতন করে,তার নাম্বার দিয়ে তার nidনাম্বার বের করা যাবে কি

  3. ভাই আমার সিম কার নামে রেজিষ্ট্রিশন করা আছে কি ভাবে বের করবো। আমি আমার,বাবা,মা এর অইডি কাট দিয়ে চেক করছি। তাতে কাজ হয় না। মূলত সিমটা আমার তুলতে হবে হারিয়ে গেছে। এখন কি ভাবে দেখবো যে কার আইডি কাট দিয়া করা।

    1. সিম কার নামে তা যদি একেবারেই না জেনে থাকেন । তাহলে আপনাকে প্রথমে অনুমান করে নিতে হবে সিমটি কার নামে হতে পারে । অনুমান করা ব্যক্তিকে যে কোন সিম বিক্রেতার কাছে গিয়ে তার ফিংগার প্রিন্ট ব্যবহার করুন (কোন ভোটার আইডি প্রয়োজন নেই) যদি সিমটি আপনার অনুমান করা ব্যক্তির নামে হয় সিমটি রিপ্লেস হয়ে যাবে । অন্যথায় আমাদের পোষ্টে দেওয়া পদ্ধতি অনুসরন করুন। আশাকরি বুঝতে পেরেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button