Tips

বায়োডাটা বাংলা ও ইংরেজি লেখার নিয়ম pdf

bio data: বায়োডাটা মানে ”জীবন বৃত্তান্ত” এটি চাকরি ও বিয়ের ক্ষেত্রে প্রয়োজন হয়। আমাদের জীবন বৃত্তান্ত লেখার প্রয়োজন হলে তা খুব সহজে যেন লিখতে পারি তা আজকের পোষ্টে আলোচনা করা হবে। যেহেতু, আজকের পোষ্ট জীবন বৃত্তান্ত নিয়ে তাই আজকে জানবো জীবন বৃওান্ত কিভাবে লিখতে হয়। বায়ো ডাটার মধ্যে আপনার নাম, বর্তমান ঠিকানা, স্থায়ী ঠিকানা ও কোন কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে তা দেখাতে পারেন। আপনি এটাকে সিভির সাথেও তুলনা করতে পারেন কারন cv full meaning Curriculum Vitae, Resume & Bio Data শব্দের অর্থ জীবন বৃত্তান্ত যা বলতে পারেন একই শব্দের সমার্থক ওয়ার্ড। তাই যারা সিভি লিখতে পারেন তারা বায়ো ডাটা খুব সহজে বানিয়ে নিতে পারবেন।

বায়োডাটা লেখার নিয়ম বাংলা ও ইংরেজি

আপনি যদি সিভি বানানে পারেন, তাহলে আপনি বায়োডাটা ও জীবন বৃত্তান্ত বানাতে পারবেন। বায়োডাটা বাংলা ও ইংরেজি একই তবে শুধু ভাষাগত পার্থক্য রয়েছে। তাই আজকের পোষ্টে বাংলা ও ইংরেজিতে Bio Data লেখার নিয়ম শেয়ার করা হবে। যাতে করে চাইলে বায়োডাটা নমুনা দেখে আপনিও একটি পরিপূর্ণ বায়োডাটা তৈরি করতে বায়োডাটা লিখতে কয়েকটি কোডিশন অতি আবশ্যকীয় যা নিম্নে দেওয়া হলোঃ

আরো পড়তে পারেনঃ বিয়ের বায়োডাটা লেখার নিয়ম
  • নিজের নাম
  • পিতার নাম
  • মাতার নাম
  • বর্তমান ঠিকানা ও স্থায়ী ঠিকানা
  • জন্ম তারিখ
  • ধর্ম
  • জাতীয়তা
  • ফোন নম্বর
  • কাজের অভিজ্ঞতা যদি থাকে
  • সিগনেচার ও তারিখ

আশাকরি উপরের কোডিশন গুলো ফিলআপ করে ফেললে আপনি একটি পরিপূর্ণ বায়োডাটা লিখতে পারবেন। অনেকেই রয়েছেন যারা বায়োডাটা ফরমেট সন্ধান করে তাদের জন্য রয়েছে বাংলা ও ইংরেজিতে ভাষার doc & PDF বায়োডাটা যা নিম্নে দেওয়া রয়েছে।

আরো পড়তে পারেনঃ ফ্রিতে চাকরির সিভি, বিয়ের সিভির ফরমেট ডাউনলোড

বায়োডাটা ফরম

বায়োডাটা ফরম আমাদের কমবেশি অনেকর প্রয়োজন পরে, কিন্তু তা সন্ধান করলে ও আমরা অনলাইনে পেয়ে থাকি না। তাই আজকের পোষ্টে বায়োডাটা ফরম আপনাদের মাঝে শেয়ার করা হবে। বায়োডাটা ফরম মূলত এটা, নাম ঠিকানা ও অনান্য তথ্য থাকে যা ফিলাপ করা থাকে না, যা নিজ হাতে ফিলাপ করে নিতে পারবেন। আপনি যদি বায়োডাটা ফরম সন্ধান করে থাকেন তাহলে, নিম্নের বায়োডাটা ফরম pdf ডাউনলোড করে নিজ পূরন করতে পারবেন।

বায়োডাটা ফরম

বায়োডাটা ফরমেট নমুনা

বায়োডাট মানে কি? তা আমরা ইতিমধ্যে জেনে গিয়েছি তাই আরও জানবো কি ফরমেটের বায়োডাটা আপনি ডাউনলোড করবেন। মূলত, বায়োডাটা কারেকশনের জন্য MS Word/Doc ফাইল সবচেয়ে ভালো, কারন doc ফাইল এডিট করে আপনার নাম ঠিকানা ও প্রয়োজনীয় তথ্য পরিবর্তন করে নিতে পারবেন। এছাড়াও, ইমেজ ও পিডিএফ ফরমেট রয়েছে যার মধ্যে থাকা কোন লেখা চেইন্জ করতে পারবেন না। আজকের পোষ্টে বায়োডাটার ইমেজ, doc ও পিডিএফ ফাইল আপনাদের কাছে শেয়ার করা হেয়েছ, যা নিম্নে দেওয়া হয়েছে চাইলে আপনার নামেও একটি বায়োডাটা তৈরি করতে পারবেন।

Bio Data doc  বায়োডাটা পিডিএফ

বায়াডাটা নমুনা

শেষ কথাঃ আজকের পোষ্টের মাধ্যমে বায়োডাটা তৈরি করার নিয়ম ও নমুনা পেয়েছেন, আশাকরি আমাদের লেখা আপনাদের ভাল লেগেছে। তাই নিত্য নতুন পোষ্ট পেতে আমাদের সঙ্গেই থাকুন। ধন্যবাদ!

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button